Loading...
The Financial Express

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সঙ্গে ‘সম্পর্কোন্নয়নের আগ্রহ প্রকাশ করেছে জাম্বিয়া

| Updated: May 04, 2021 19:40:17


সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ সোমবার জাম্বিয়ার ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওয়েজি লুখেলের সঙ্গে বৈঠক করেন। ছবি: আইএসপিআর সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ সোমবার জাম্বিয়ার ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওয়েজি লুখেলের সঙ্গে বৈঠক করেন। ছবি: আইএসপিআর

বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সঙ্গেসম্পর্কোন্নয়নের আগ্রহ প্রকাশ করেছে’ আফ্রিকার দেশ জাম্বিয়া।

সোমবার জাম্বিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে বাংলাদেশের সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের সঙ্গে এক বৈঠকে সে দেশের ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওয়েজি লুখেল এই আগ্রহ প্রকাশ করেন বলে মঙ্গলবার আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। খবর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম-এর।

জাম্বিয়া সেনাবাহিনীর কমান্ডারের আমন্ত্রণে গত শুক্রবার থেকে সে দেশে সফরে আছেন বাংলাদেশের সেনাপ্রধান।

আইএসপিআর জানিয়েছে, জেনারেল আজিজ আহমেদ সোমবার জাম্বিয়ার ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওয়েজি লুখেলের সঙ্গে বৈঠক করেন। দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক সামরিক সহযোগিতা ও সম্পর্কের বিষয়টি সেখানে তুলে ধরা হয়।

জাম্বিয়ার ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সাথে (তারা) উন্নত সম্পর্ক স্থাপনে আগ্রহী। তিনি বাংলাদেশের সাথে নিবিড়ভাবে কাজ করার জন্য জাম্বিয়া সরকারের অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন এবং বাংলাদেশের কৃষি ক্ষেত্রের দক্ষতার সহায়তা নেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেন।”

পরে জেনারেল আজিজ আহমেদ জাম্বিয়ার সেনা সদর দপ্তরে জাম্বিয়া আর্মির কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল উইলিয়াম মাইপাম্বে সিকাজওয়ের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন।

জেনারেল সিকাজওয়ে তার আমন্ত্রণ গ্রহণ করায় এবং উভয় সেনাবাহিনীর মধ্যে সুসম্পর্ক স্থাপনের জন্য জেনারেল আজিজ আহমেদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

“তিনি বলেন যে, উভয় সেনাবাহিনী সামরিক কার্যক্রম বাড়াতে সচেষ্ট হবে যা উভয়ের জন্য উপকারী হবে।"

আইএসপিআর জানিয়েছে, বৈঠকে জেনারেল আজিজ আহমেদ জাম্বিয়া সেনাবাহিনীর সাথে প্রশিক্ষণ কার্যক্রম বিনিময় সুসংহত করার এবং জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা, সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলা, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা- ইত্যাদি ক্ষেত্রেসাবজেক্ট ম্যাটার এক্সপার্ট এক্সচেঞ্জ’ (এসএমইই) প্রোগ্রাম পরিচালনা করার ইচ্ছা প্রকাশ করেন।

জেনারেল আজিজ আহমেদ সামরিক বাহিনীর সদস্যদের জন্য জাম্বিয়ায় অন অ্যারাইভাল ভিসার বিষয়টিও তুলে ধরেন এবং জেনারেল সিকাজওয়ে আশ্বাস দেন যে, শিগগিরেই সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের জন্য তিনি উদ্যোগ গ্রহণ করবেন।"

বাংলাদেশের সেনাপ্রধান সোমবার বিকালে জাম্বিয়ার বিমান বাহিনীর সদর দপ্তরে দেশটির এয়ার ফোর্সের ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার মেজর জেনারেল বেনেডিক্ট টি কালিন্ডার সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “মেজর জেনারেল কালিন্দা বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি জাম্বিয়া এয়ার ফোর্সের কর্মকর্তা ও সদস্যদের বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানে প্রশিক্ষণের সম্ভাবনা তুলে ধরেন।

জেনারেল আজিজ আহমেদ বিষয়টিকে স্বাগত জানান এবং আগামী দিনে দুই দেশের সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে সম্পর্ক আরও বৃদ্ধি পাবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

আইএসপিআর জানিয়েছে, সফরকালে বাংলাদেশের সেনাবাহিনী প্রধানকে জাম্বিয়ার সেনাবাহিনী ও বিমানবাহিনীর দুটি চৌকস দল গার্ড অব অনার এবং লালগালিচা সংবর্ধনা দেয়।

মঙ্গলবার জাম্বিয়া ন্যাশনাল সার্ভিস কমান্ড্যান্টের সাথে সাক্ষাতের কথা রয়েছে জেনারেল আজিজ আহমেদের। তিনি জাম্বিয়ার সশস্ত্র বাহিনীর অন্যান্য সিনিয়র নেতৃত্বের সাথেও বৈঠক করবেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

জাম্বিয়া সশস্ত্র বাহিনীর বিভিন্ন প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন শেষে ৬ মে দেশে ফেরার কথা রয়েছে সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের।

Share if you like

-->