Loading...

ভোটকেন্দ্রে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা হলে কঠোর ব্যবস্থা: নারায়ণগঞ্জের এসপি

| Updated: January 15, 2022 22:32:51


ভোটকেন্দ্রে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা হলে কঠোর ব্যবস্থা: নারায়ণগঞ্জের এসপি ভোটকেন্দ্রে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা হলে কঠোর ব্যবস্থা: নারায়ণগঞ্জের এসপি

নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনের দিন ভোটকেন্দ্রে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করলে কঠের ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন জেলার পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম।  খবর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের।

শনিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ শহরের মাসদাইর পুলিশ লাইন্স মাঠে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা পুলিশ ও আনসার সদস্যদের ব্রিফিং অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে রিটার্নিং কমকর্তা মাহফুজা আক্তার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মতিয়ুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

জায়েদুল বলেন, “নির্বাচনে পুলিশ, র্যাব, আনসার, বিজিবিসহ পাঁচ হাজারের বেশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন থাকবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন থাকবে। একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষ্যে নিরাপত্তায় কঠোর অবস্থানে থাকবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

“কাউকে ভোট কেন্দ্র দখল, ভোট কেন্দ্রে প্রভাব বিস্তার করতে দেওয়া হবে না। ভোট কেন্দ্রে তিন স্তরের নিরাপত্তা বলয় থাকবে।”

এসপি বলেন, “নির্বাচনের দিন বহিরাগত কাউকে সিটি কর্পোরেশন এলাকায় প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। ১৮ বছরের উপরে যারা নারায়ণগঞ্জ থেকে বের হবেন তাদের এনআইডি কার্ড সঙ্গে রাখতে হবে।”

নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন সারাদেশে মডেল নির্বাচন হবে বলে ঘোষণা দেন তিনি।

মেয়র প্রার্থী তৈমুর আলম খন্দকারের পুলিশী হয়রানির অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, পুলিশ কোন ব্যক্তি, দল বা গোষ্ঠীর হয়ে কাজ করছে না, কাউকে হয়রানি করছে না। সন্ত্রাসী বা মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তারী পরোয়ানা আছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

অনুষ্ঠানে রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহফুজা আক্তার বলেন, “সুষ্ঠ নির্বাচনের স্বার্থে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।”

রোববার নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনের মেয়র পদে সাত প্রার্থী, কাউন্সিলর পদে সাধারণ ওয়ার্ডে ১৪৮ ও সংরক্ষিত আসনে ৩৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচনে ৫ লাখ ১৭ হাজার ৩৬১ জন ভোটার ২৭টি ওয়ার্ডের ১৯২টি ভোটকেন্দ্রে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

Share if you like