Loading...
The Financial Express

শনিবার রাতেই সৌদি আরব যাচ্ছেন দুই শতাধিক প্রবাসী

| Updated: April 18, 2021 16:38:06


চলমান লকডাউনে আটকেপড়া প্রবাসীদের ফেরত পাঠাতে শনিবার নির্ধারিত ১৪টি ফ্লাইটের অর্ধেকই বাতিল হয়ে যাওয়ায় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে দুর্ভোগে পড়েন কয়েকশ প্রবাসী। ছবি: বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম চলমান লকডাউনে আটকেপড়া প্রবাসীদের ফেরত পাঠাতে শনিবার নির্ধারিত ১৪টি ফ্লাইটের অর্ধেকই বাতিল হয়ে যাওয়ায় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে দুর্ভোগে পড়েন কয়েকশ প্রবাসী। ছবি: বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

দিনভর ভোগান্তি শেষে শনিবার রাতের মধ্যেই বিমান বাংলাদেশের বিশেষ ফ্লাইটে উঠতে পারবেন সৌদি আরবগামী দুই শতাধিক যাত্রী।

প্রবাসে নিজ কর্মস্থলে ফিরতে শনিবার সকালে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিশেষ ফ্লাইটে তাদের রিয়াদ যাওয়ার কথা ছিল। রিয়াদে ‘ল্যান্ডিং পারমিশন’ পেতে দেরি হওয়ায় তাদের সকালের যাত্রা বাতিল হয়। এ নিয়ে ক্ষোভ দেখান যাত্রীরা।

পরে উড়োজাহাজ অবতরণের অনুমোদন পাওয়া যাওয়ায় শনিবার সন্ধ্যায় ও রাত তিনটার দিকে পৃথক ফ্লাইটে এসব যাত্রীরা নিজেদের গন্তব্যে রওনা হচ্ছেন বলে জানিয়েছেন বিমান বাংলাদেশের জনসংযোগ শাখার উপ মহাব্যবস্থাপক তাহেরা খন্দকার, খবর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের।

তিনি শনিবার বিকেলে বলেন, কোনো দেশে বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করতে হলে সেই দেশের ল্যান্ডিং পারমিশন লাগে। করোনা পরিস্থতির মধ্যে বিমান সৌদি আরবের রিয়াদ, দাম্মাম ও জেদ্দায় বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করবে।

জেদ্দায় বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনার জন্য বিমানের ল্যান্ডিং পারমিশন নেয়া ছিল। শনিবার দুপুরে রিয়াদ ও দাম্মামে বিশেষ  ফ্লাইট পরিচালনার জন্য ল্যান্ডিং পারমিশন পাওয়া গিয়েছে বলেন তিনি।

তিনি আরও জানান, শনিবার ভোরে বিমানের যেসব যাত্রী রিয়াদে যেতে পারেননি তাদের একটি অংশকে সন্ধ্যায় বিমানের জেদ্দাগামী একটি ফ্লাইটে পাঠানো হবে। বাকি যাত্রীদের ভোররাত ৩টার দিকে বিমানের রিয়াদগামী আরেকটি ফ্লাইটে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তাহেরা খন্দকার বলেন, “রোববার থেকে আশা করা হচ্ছে কোনো ধরনের সমস্যা ছাড়াই বিমান নির্ধারিত গন্তব্যগুলোতে বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করতে পারবে।“

চলমান লকডাউনে আটকেপড়া প্রবাসীদের ফেরত পাঠাতে শনিবার বিভিন্ন এয়ারলাইন্সের নির্ধারিত ১৪টি ফ্লাইটের অর্ধেকই বাতিল করা হয়, এর মধ্যে রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান বাংলাদেশের পাঁচটি ফ্লাইট রয়েছে। 

লকডাউনে আটকেপড়া প্রবাসীদের ফেরত পাঠাতে শনিবার থেকে পাঁচ দেশের আট গন্তব্যে বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয় বিমান।

এসব গন্তব্য হলো, সৌদি আরবের রিয়াদ, দাম্মাম ও জেদ্দা, সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই ও আবুধাবি, ওমানের রাজধানী মাস্কাট, কাতারের রাজধানী দোহা ও সিঙ্গাপুর।

তবে শনিবার সকালে রিয়াদে ফ্লাইট পরিচালনার জন্য ল্যান্ডিং পারমিশন পেতে বিলম্ব হওয়ায় সকাল ৬টায় ঢাকা থেকে বিমানের রিয়াদগামী একটি ফ্লাইট বাতিল করা হয়।

উড্ডয়নের আগে ফ্লাইট বাতিলের কথা জানানোর প্রতিবাদে বিমানবন্দরে উপস্থিত হয়ে রিয়াদগামী যাত্রীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এরপর বিমান ওই ফ্লাইটে ২০১ জন যাত্রীকে হোটেলে রাখার উদ্যোগ নিয়ে পরে তাদের অন্য ফ্লাইটে রিয়াদে পাঠানো হবে বলে জানানো হয়। 

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক তৌহিদ উল আহসান বলেন, “সারা দিনে বিভিন্ন এয়ারলাইন্সের ৫টি দেশের ১৪টি বিশেষ ফ্লাইটের স্লট নির্ধারিত ছিল। কিন্তু নানা কারনে সাতটি ফ্লাইট বাতিল করা হয়। 

Share if you like

Filter By Topic